সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:১৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গোল্ডেন জুবিলি আওয়ার্ড পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তা মেহেরপুরের নিলুফার ইয়াসমিন রুপা দুটি কথা (মাসাদুল সেখ) সোনিয়ার শরীরের ভেতর বেড়ে উঠছে আরেকটি শরীর সাভার ও আশুলিয়ার তিন কারখানাকে ক্ষতিপূরণ ধার্য মেহেরপুরে ইয়েস বাংলাদেশ এর উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ। মেহেরপুরে নিলুফার ইয়াসমিন রুপার বিরুদ্ধে মিথ্য, ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ‘‘যার নাম শুনলে ভয়ে ঘুমিয়ে যেত মায়ের কোলের শিশু’’ সেই রওশন আলী মেহেরপুর কারাগারে গাংনীর রাইপুর ইউনিয়নে নারী শিক্ষার্থীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ গাংনী ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির সংবাদ সম্মেলন ছিনতাইয়ের পাঁচদিন আগে আমঝুপি নীলকুঠিতে পরিকল্পনা করে ছিনতাইকারীরা

আবারও মমতার বাংলা বিজয়!

জাবেদুর রহমান জনিঃ
ভারতের পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচনের ফলাফলের যে ট্রেন্ড তাতে ধারণা পাওয়া যাচ্ছে বিপুল ব্যবধানে জিতে টানা তৃতীয়বারের মত আবারো রাজ্যের ক্ষমতায় আসতে যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর দল তৃণমূল কংগ্রেস।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ভারতের জাতীয় নির্বাচন কমিশন যে ২৮৪টি আসনের ফলাফলের ট্রেন্ড জানিয়েছে, তাতে ২০২টি আসনে এগিয়ে রয়েছে তৃণমূল, প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বি বিজেপি পেতে যাচ্ছে মোটে ৭৭টি আসন।

দেখা যাচ্ছে যে ২৯২টি আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে তার অধিকাংশের ব্যাপারেই স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যাচ্ছে এরই মধ্যে।

কলকাতা থেকে সংবাদদাতা কৌস্তভ ভৌমিক জানাচ্ছেন, এখন পর্যন্ত কোনো আসনের চূড়ান্ত ফলাফল না জানানো হলেও অধিকাংশ আসনে এগিয়ে থাকা দলের ব্যবধান এত বেশি যে পরবর্তীতে ফল অন্যরকম হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম।

তবে দল জিতবে বলে আশা তৈরি হলেও দলের প্রধান মমতা ব্যানার্জী একমাত্র যে আসনটি থেকে লড়ছেন, সেই নন্দীগ্রামে এখন পর্যন্ত যতদূর ভোট গণনা হয়েছে তাতে বেশ পিছিয়ে আছেন তিনি। এখানে এখন পর্যন্ত এগিয়ে আছেন বিজেপির শুভেন্দু অধিকারী, যিনি একসময় তৃণমূলেই ছিলেন।

মমতা ব্যানার্জী যদি শেষ পর্যন্ত হেরেই যান এবং তার দল যদি জেতে তাহলে আবার মুখ্যমন্ত্রী হতে হলে তাকে ছয় মাসের মধ্যে কোন একটা আসনে উপনির্বাচনে বিজয়ী হয়ে আসতে হবে।

আনুষ্ঠানিক ঘোষনা না এলেও প্রধান দলগুলোর শিবিরে এরই মধ্যে বার্তা পৌঁছে গেছে জয়-পরাজয়ের।

কলকাতা থেকে সংবাদদাতা কৌস্তভ ভৌমিক আর দিবাকর দাশ জানাচ্ছেন, কলকাতার রাস্তায় এই মধ্যে আগাম বিজয় উদযাপন তারা করতে দেখেছেন তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থকদের।

কলকাতায় তৃণমূলের মিডিয়া সেন্টার সমর্থকদের ভীড়ে সরগরম থাকলেও বিজেপির নির্বাচনী অফিস করছিল খাঁ খাঁ।

তবে ফলাফলে হঠাৎ পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা একেবারে উড়িয়ে দিচ্ছেন না সংবাদদাতা কৌস্তভ ভৌমিক।

গত নভেম্বরের বিহার নির্বাচনের উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, “বিহারের নির্বাচনের ফলাফল যখন দেয়া হচ্ছিল, তখন দুপুর ১টা পর্যন্ত হিসেব একরকম ছিল। তারপর থেকেই বিজেপি’র পাল্লা ভারী হওয়া শুরু করে এবং শেষ পর্যন্ত কিন্তু বিজেপি ও তার মিত্র দলগুলোই জয় পায়।”


আপনার মতামত লিখুন :

২ responses to “আবারও মমতার বাংলা বিজয়!”

  1. Habibur Rahman says:

    দিদি আবারো ঘরে আসলো

  2. দিপা says:

    অভিনন্দন দিদি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন