সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:০২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গোল্ডেন জুবিলি আওয়ার্ড পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তা মেহেরপুরের নিলুফার ইয়াসমিন রুপা দুটি কথা (মাসাদুল সেখ) সোনিয়ার শরীরের ভেতর বেড়ে উঠছে আরেকটি শরীর সাভার ও আশুলিয়ার তিন কারখানাকে ক্ষতিপূরণ ধার্য মেহেরপুরে ইয়েস বাংলাদেশ এর উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ। মেহেরপুরে নিলুফার ইয়াসমিন রুপার বিরুদ্ধে মিথ্য, ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ‘‘যার নাম শুনলে ভয়ে ঘুমিয়ে যেত মায়ের কোলের শিশু’’ সেই রওশন আলী মেহেরপুর কারাগারে গাংনীর রাইপুর ইউনিয়নে নারী শিক্ষার্থীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ গাংনী ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির সংবাদ সম্মেলন ছিনতাইয়ের পাঁচদিন আগে আমঝুপি নীলকুঠিতে পরিকল্পনা করে ছিনতাইকারীরা

গাংনীতে শুক্রবারে দুই যুবকের আত্নহত্যা

 

মেহেরপুর।
মেহেরপুরের গাংনীতে পৃথক গ্রামে দুই যুবকের আতœহত্যার ঘটনা ঘটেছে। বৃস্পতিবার দিবাগত মধ্যেরাতে নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে লিখন হোসেন (১৮) , ও শুক্রবার দুপুরে সাহারবাটি গ্রামের আশিকুর রহমান (১৭) নামের দুই যুবক আত্মহত্যা করেছে।

লিখন হোসেন গাংনী পৌর এলাকার ভিটাপাড়ার রবিউল ইসলামের ছেলে।
আশিকুর রহমার আশিক গাংনী উপজেলার সাহারবাটি গ্রামের তারেক হোসেনের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, লিখনের বাবা কয়েক বছর যাবত অসুস্থ। বাবা রবিউল চিকিৎসা নিয়ে তার মাকে সাথে করে ঢাকা থেকে বৃস্পতিবার মধ্যেরাতে বাড়ি পৌঁছান। বাড়ি পৌঁছানোর পর নিজ ঘরের আড়ার সাথে ছেলে লিখনের ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান। পরে প্রতিবেশীরা এসে তার মরদেহ উদ্ধার করেন। লিখনের বাবা ও মা বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা থেকে যখন বাড়ি ফিরছিলেন। তখন লিখন তার মায়ের সাথে মোবাইলফোনে কথাও বলেছিলেন। রাত তিনটার দিকে তার মা-বাবা বাড়ি ফিরে দেখে ঘরের আড়ার সাথে ছেলের মরদেহ ঝুলছে। প্রেম সংক্রান্ত কারণে লিখন অভিমানে আত্মহত্যা করেছে বলে স্থানীয়দের ধারনা।

অপরদিকে সাহারবাটি গ্রামের যুবক আশিকুর জুম্মার নামাজ আদায়ের কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। এসময় তার মায়ের সাথে অভিমান করে নামাজ আদায় করতে না গিয়ে নিজ ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে আতœহত্যা করে। অনেক সময় তার খোঁজ না পেয়ে আশিকের মা ঘরে প্রবেশ করে ছেলেকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে চিৎকার দিলে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
আতœহত্যার ঘটনায় নিহত দুই যুবকের পরিবারে নেমে এসেছে শোকের মাতম।

গাংনী থানার ওসি বজলুর রহমান জানান,বিষয়টি নিয়ে তদন্তের পর প্রকৃত কারন কারণ বলা সম্ভব হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন