সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গোল্ডেন জুবিলি আওয়ার্ড পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তা মেহেরপুরের নিলুফার ইয়াসমিন রুপা দুটি কথা (মাসাদুল সেখ) সোনিয়ার শরীরের ভেতর বেড়ে উঠছে আরেকটি শরীর সাভার ও আশুলিয়ার তিন কারখানাকে ক্ষতিপূরণ ধার্য মেহেরপুরে ইয়েস বাংলাদেশ এর উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ। মেহেরপুরে নিলুফার ইয়াসমিন রুপার বিরুদ্ধে মিথ্য, ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ‘‘যার নাম শুনলে ভয়ে ঘুমিয়ে যেত মায়ের কোলের শিশু’’ সেই রওশন আলী মেহেরপুর কারাগারে গাংনীর রাইপুর ইউনিয়নে নারী শিক্ষার্থীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ গাংনী ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির সংবাদ সম্মেলন ছিনতাইয়ের পাঁচদিন আগে আমঝুপি নীলকুঠিতে পরিকল্পনা করে ছিনতাইকারীরা

গাংনী ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির সংবাদ সম্মেলন

মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ
গাংনী রবিউল ইসলাম মেমোরিয়াল হাসপাতালের স্বত্ত্বাধিকারী তরিকুল ইসলামের অভিযোগ ও মেহেরপুর প্রতিদিন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন গাংনী ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতি। আজ রোববার দুপুরে এইচএম ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন গাংনী উপজেলা ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন মিঠু।

লিখিত বক্তব্যে দেলোয়ার হোসেন মিঠু বলেন, রবিউল মেমোরিয়াল হাসপাতালের স্বত্ত্বাধিকারী তরিকুল ইসলাম গত ০২ সেপ্টেম্বর গাংনীর কাথুলী গ্রামের চুমকী খাতুনকে ভোরের আলো উন্নয়ন সংস্থার নামে গর্ভবতীর স্বাস্থ্য সেবা কার্ড করে দেন এবং সিজার করানোর জন্য ৬৫০০/- টাকা চুক্তি করেন। পরে চুক্তি ভঙ্গ করে ৮৫০০/- টাকা দাবী করেন। বিষয়টি ভুক্তভোগি পরিবার থেকে গাংনী ক্লিনিক মালিক সমিতিকে অবহিত করলে তরিকুলকে সমিতির পক্ষ থেকে ডাকা হলে তিনি তা উপেক্ষা করে সমিতির লোকজনকে তার প্রতিষ্ঠানে যেতে বলে। পরে সেখানে যাওয়া হলে তিনি স্বদুত্তোর না দিয়ে এটি ব্যবসায়িক পলিসি বলে জানান। এ সময় খারাপ আচরনও করা হয় বলে দাবী করেন দেলোয়ার হোসেন মিঠু। এ বিষয়ে সমিতির পক্ষ থেকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হলেও তরিকুল ইসলাম কোন জবাব প্রদান করেন নি।

এদিকে তরিকুল ইসলাম কৌশল অবলম্বন করে তার স্ত্রীকে দিয়ে গাংনী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। সেই সাথে মেহেরপুর প্রতিদিন পত্রিকায় আমার সম্মান ক্ষুন্ন করে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। যা সম্পুর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট বলেও দাবীসহ তরিকুলের এহেন আচরণ অত্র সমিতির পাশাপাশি ব্যক্তিগতভাবে আমার সম্মানহানী করেছে বলেও দাবী করেন দেলোয়ার হোসেন মিঠু। এবিষয়ে রবিউল ইসলাম মেমোরিয়াল হাসপাতালের পরিচালক তরিকুল ইসলাম বলেন, রোগীর পরিবারের কোনো অভিযোগ নেই। তাছাড়া  রোগীরা সাধঅরণ বেডের কন্ট্রাক্ট করে ব্যাক্তিগত কেবিন ব্যাবহার করেছে। তারা কেবিন ভাড়া দিতেও রাজি হয়েছে। তাই সাড়ে ছয় হাজার টাকা থেকে তিন হাজার টাকা বৃদ্ধি হয়েছে । সেখান থেকেও এক হাজার টাকা কম নেয়া হয়। তাছাড়া আমার বিরুদ্ধে কোন রোগীর অভিযোগ থাকলে সিভিল সার্জন কিংবা সংশ্লিষ্ট প্রশাসন দেখবে। সাংগঠনিক সুরক্ষা না দিয়ে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন মিঠু  তার লোকজন নিয়ে আমাকে ও আমার স্ত্রীকে লান্চিত করেছেন। ও ক্লিনিকের আসবাপত্র ভাংচুর করেছেন।

এবিষয়ে উপজেলা ক্লিনিক মালিক সমিতির সভাপতি নুরুল হুদা কোনো মন্তব্য করতে চাননি।

সংবাদ সম্মেলনে গাংনী উপজেলা ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির সদস্যবৃন্দ ও প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রীক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন