সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গোল্ডেন জুবিলি আওয়ার্ড পেয়েছেন নারী উদ্যোক্তা মেহেরপুরের নিলুফার ইয়াসমিন রুপা দুটি কথা (মাসাদুল সেখ) সোনিয়ার শরীরের ভেতর বেড়ে উঠছে আরেকটি শরীর সাভার ও আশুলিয়ার তিন কারখানাকে ক্ষতিপূরণ ধার্য মেহেরপুরে ইয়েস বাংলাদেশ এর উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ। মেহেরপুরে নিলুফার ইয়াসমিন রুপার বিরুদ্ধে মিথ্য, ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ‘‘যার নাম শুনলে ভয়ে ঘুমিয়ে যেত মায়ের কোলের শিশু’’ সেই রওশন আলী মেহেরপুর কারাগারে গাংনীর রাইপুর ইউনিয়নে নারী শিক্ষার্থীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ গাংনী ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির সংবাদ সম্মেলন ছিনতাইয়ের পাঁচদিন আগে আমঝুপি নীলকুঠিতে পরিকল্পনা করে ছিনতাইকারীরা

সাভার ধামরাইয়ে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

মোঃ শান্ত খান, ঢাকা জেলা প্রতিনিধিঃ

রাষ্ট্রীয় গোপনীয় নথি চুরির অভিযোগে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা করার প্রতিবাদে ঢাকার সাভার ও ধামরাইয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা।

বুধবার বেলা ১১টায় ঘণ্টাব্যাপী সাভার প্রেসক্লাব ও ধামরাই প্রেসক্লাবের সামনে আলাদা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা রোজিনার মুক্তি ও তার নামে করা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান সাংবাদিকরা। এর আগে গতকাল (১৮ মে) সাভারের আশুলিয়ায়ও প্রেসক্লাবের উদ্যোগে প্রতিবাদী মানববন্ধন করা হয়।

এসব সমা‌বে‌শে বক্তারা প্রথম আলোর সি‌নিয়র রিপোর্টার রো‌জিনা ইসলামের দ্রুত মু‌ক্তির দাবি জানান।

তারা ব‌লেন, ঘটনাটি খুবই অনভিপ্রেত ও অনাকাঙ্ক্ষিত। একজন ‌পেশাদার সি‌নিয়র সাংবা‌দিক‌কে স‌চিবাল‌য়ে আট‌কে রেখে হেনস্তা, মামলা দি‌য়ে হয়রা‌নির ঘটনা আমাদের সাংবাদিকতার ওপর বড় আঘাত। অনুসন্ধানী ও দুর্নী‌তিবিরোধী সাংবা‌দিকতাকে বাঁধাগ্রস্ত করাই এস‌বের উদ্দেশ্য।

উল্লেখ্য, সোমবার (১৭ মে) দুপুরে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গেলে সচিবালয়ের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটি কক্ষে প্রায় ছয়ঘণ্টা আটকে রাখা হয় অনুসন্ধানী সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে।

এ সময় তাকে হেনস্তাসহ শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করা হয়। কেড়ে নেওয়া হয় তার মোবাইল ফোন।

ঘটনার সময়ের বিভিন্ন ভিডিও ও স্থির চিত্রে রোজিনার গলা চেপে ধরে তাকে হেনস্তা করতে দেখা যায় অতিরিক্ত সচিব কাজী জেবুন্নেছা বেগমকে। হেনস্তার একপর্যায়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লেও তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়নি। উল্টো তার বিরুদ্ধে সরকারি নথি চুরির অভিযোগে মামলা দিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে এবং তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি করেছে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক ও দেশের বিভিন্ন মহল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন